Wednesday, June 23, 2021
Homeপ্রযুক্তিপ্রাণের স্পন্দন শুক্রগ্রহেও?

প্রাণের স্পন্দন শুক্রগ্রহেও?

নিজস্ব সংবাদদাতা : সৌরজগতে দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করছে শুক্রগ্রহ। বুধের পরই অবস্থান করেছে শুক্র, যা শুকতারা নামেও পরিচিত। সম্প্রতি শুক্রগ্রহে ফসফিন নামক একটি গ্যাসের সন্ধান পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা, যার ফলে মনে করা হচ্ছে শুক্রগ্রহে প্রাণের অস্তিত্ব থাকলেও থাকতে পারে।হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জ এবং চিলির অ্যাটাকামা মরুভূমিতে বিশেষ টেলিস্কোপ বসিয়ে শুক্রগ্রহের মাটি থেকে ৬০ কিলোমিটার ঊর্ধ্বে মেঘের ওপরের স্তরের আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ করে বিজ্ঞানীরা এই ফসফাইন গ্যাসের উপস্থিতি লক্ষ্য করতে পেরেছেন। তার থেকেই অনুমান, সেখানে প্রাণের অস্তিত্ব থাকলেও থাকতে পারে। যদিও পুরো বিষয়টাই এখন প্রাথমিক পর্যায়ের গবেষণায় রয়েছে। তবে বিজ্ঞানীদের একাংশ মনে করেন, এই গ্যাসের উপস্থিতি মানেই যে সেখানে প্রাণের অস্তিত্ব মিলবে এমন ধারণা করা ভুল। প্রাণের উপস্থিতি না থাকলেও কী ভাবে সেখানে ফসফাইন গ্যাস প্রস্তুত হতে পারে, তা খতিয়ে দেখছেন বিজ্ঞানীরা।একটি ফসফরাসের পরমাণুর সঙ্গে তিনটি হাইড্রোজেনের পরমাণু একসঙ্গে হলে ফসফিন (PH3) গ্যাস তৈরি হয়। প্রসঙ্গত, এই গ্যাস মানবশরীরের জন্য ক্ষতিকর। এত দিন অবধি যা তথ্য মিলেছে, ফসফিন গ্যাসের প্রাকৃতিক উত্‍স ব্যাকটেরিয়া। ফলে শুক্র গ্রহের চারপাশে যে ফসফিনের স্তর রয়েছে, তা কোনও ব্যাকটেরিয়ার কারণেই তৈরি হয়েছে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। তবে শুক্র গ্রহের যে তাপমাত্রা তাতে প্রাণ টিকে থাকার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ বলে মনে করেন একদল বিজ্ঞানী। তাদের মতে, ৪৬৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস যেখানে সীসার মতো শক্ত ধাতব পদার্থকে গলিয়ে দিতে পারে, সেখানে কীভাবে প্রাণের অস্তিত্ব থাকতে পারে?

Most Popular