Friday, July 30, 2021
HomeEDITOR PICKSকৃষক ইস্যু নিয়েই কী দিল্লি যাবে হাওয়াই চটি?

কৃষক ইস্যু নিয়েই কী দিল্লি যাবে হাওয়াই চটি?

নিজস্ব সংবাদদাতা: মোদী বিরোধী মুখ হিসেবে মমতাকেই বেছে নিচ্ছেন অনেকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছুদিন আগেই বাঙালি প্রধানমন্ত্রীর দাবিতে ঝড় উঠেছিল। এরই মধ্যে কেন্দ্রীয় সরকারের কৃষি আইন বিরোধী কৃষক আন্দোলনে নিয়োজিত কৃষক নেতারা বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতেও এসেছেন বাংলায়। ২১ সালের কৃষক বিদ্রোহের শুরুতেই দিল্লিতে ডেরেক ও’ব্রায়েনকে পাঠিয়ে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন মমতা,নেতাদের সঙ্গে কথা বলেছিলেন ফোনেও। এবার প্রশ্ন উঠছে এটাই, কৃষকদের নানান ইস্যুকে সামনে রেখেই কী দিল্লির পথে হাঁটবেন মমতা? ক্ষমতায় এসে কাজ শুরু করার পরই সরকার পক্ষে একথা স্পষ্ট করা হয়েছে, এবার ২৪ এর নজর দিল্লি। সেইমত দলের সর্বভারতীয় সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে। আবার তৃণমূলের বুদ্ধিজীবী প্রশান্ত কিশোরও শরদ পাওয়ারের সঙ্গে কথাবার্তা শুরু করেছেন, ক’দিন আগে বৈঠকও হয়েছে তাঁর। রাজনৈতিক মহলে মনে করা হচ্ছে, বিজেপি বিরোধী দলগুলির সঙ্গে জোট করে কী এবার দিল্লির দিকে পাড়ি দিচ্ছেন মমতা?
এই প্রশ্নের পরিপ্রেক্ষিতে রয়েছে মমতার সম্প্রতি নেওয়া কিছু পদক্ষেপ:

• ৯ই জুন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে নবান্নে বৈঠক করেন কৃষক আন্দোলনের বিশেষ মুখ রাকেশ টিকায়েত, অনুজ সিং এবং যদুবীর সিংহ। সেখানে বৈঠকের পর মমতা স্পষ্ট করে জানান, মোদী বিরোধীদের একত্রিত হতে হবে, কারণ মোদীকে সরানোই মূল লক্ষ্য।

•১৪ই জুন সিঙ্গুর আইন পাশের ১০ বছর পূর্তিতেও মমতা কৃষকদের জন্যে লড়ার অঙ্গীকার দেন। তিনি লেখেন, কৃষকদের অভিযোগকে সামনে আনা, তাঁদের অধিকারের জন্যে আমরা সংঘবদ্ধভাবে লড়েছি। কেন্দ্রের জন্যে কৃষকেরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। সমাজের মেরুদণ্ড যাঁরা, তাঁদের অধিকারের জন্যে আমরা লড়াই চালিয়ে যাব।

•১৭ই জুন কৃষক বন্ধু প্রকল্পের নতুনভাবে সুচনা করেন মমতা। কৃষক বন্ধুর আওতায় যেসব কৃষকেরা রয়েছেন তাঁরা ৫ হাজার টাকার বদলে এবার বছরে দু-দফায় ১০ হাজার টাকা পাবেন। অনুরূপভাবে, ক্ষেতমজুর এবং বর্গাদারদের বছরে পাওয়া ২ হাজার টাকা বাড়িয়ে ৪ হাজার টাকা করলো বাংলার সরকার।

বলা যেতেই পারে, কৃষকদের দিকে ফোকাস করা মমতা ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রীর আসনের দিকে আঁড়চোখে তাকিয়ে থেকেই বাংলা চালাচ্ছেন।

Most Popular