30 C
Kolkata

Health tips: কখন দাঁত মাজলে বেশি উপকার পাওয়া যায়

নিজস্ব প্রতিবেদন: দিনের শুরুটাই হয় সকালে ঘুম থেকে ওঠার মধ্য দিয়ে। আর সকালে ঘুম থেকে উঠেই যে কাজটি করতে হয় তা হলো, দাঁত ব্রাশ করে নিজেকে একটু ফ্রেশ করে নেয়া। আমাদের দেশের শতকরা ৯৫ ভাগ মানুষই এ কাজটি করে থাকেন। দৈনিক রুটিনে এ কাজটি কতটা স্বাস্থ্যকর কিংবা উপকারী, তা কি আপনি জানেন?

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আমাদের প্রতিদিনের লাইফস্টাইলের ভুলের কারণে শরীরে বাসা বাঁধার সুযোগ পাচ্ছে নানা রোগ। এ ছাড়া চিরাচরিত বা প্রচলিত অনেক ভ্রান্ত ধারণার জন্যও আমরা সম্মুখীন হচ্ছি নানান জটিলতার।

এই যেমন দাঁত ব্রাশ করার কথাই বলা যাক। ছোটবেলা থেকেই আমরা আমাদের মা, দাদি, কাছ থেকে শিখেছি, ঘুম থেকে উঠেই দাঁত ব্রাশ করে ফেলতে হবে। কিন্তু এ বিষয়টি নিয়ে ডেন্টিস্টরা কিন্তু ভিন্ন মত পোষণ করেছেন।

ডেন্টিস্টরা মনে করেন, আমাদের প্রতিদিন অন্তত দুবার দাঁত ব্রাশ করা প্রয়োজন। সকালে এবং রাতের সময়টাকেই বিশেষজ্ঞরা সাধারণত সাজেস্ট করেন।

প্রতিবার খাওয়ার পরপরই দাঁত ব্রাশ করার কথা বলছেন কেউ কেউ। এতে নাকি দাঁতে খাদ্যকণা জমে থাকে না, তাই দাঁত ভালো থাকে।

আরও পড়ুন:  TMC: কালিয়াগঞ্জ ইস্যুতে এবার ডিভিশন বেঞ্চে মমতা সরকার

এ বিষয়ে দন্ত বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বললে বেরিয়ে আসে সম্পূর্ণ ভিন্ন তথ্য। তারা মনে করেন, খাওয়ার পর বারবার দাঁত মাজার কোনো প্রয়োজন নেই। এতে আমাদের দাঁতের স্বাস্থ্য নাজুক হয় এবং দাঁত ভঙ্গুরের সমস্যা দেখা দেয়।

সবচেয়ে উত্তম উপায় হলো সারা দিনের কর্মব্যস্ততার পর দাঁত মেজে ঘুমাতে যাওয়া। যারা রাতে দাঁত মেজে ঘুমান, তাদের দিনের শুরুতেই দাঁত মাজার কোনো প্রয়োজন নেই।

এ বিষয়ে দন্ত্য বিশেষজ্ঞ ডা. অরূপ রতন চৌধুরী মনে করেন, সামান্য কুলকুচি করেই তারা সকালের নাশতা করে নিতে পারেন। কারণ, সকালের নাশতার পরই তাদের দাঁত মাজা ভালো।

তবে খাওয়ার পরপরই দাঁত মাজতে যাওয়া কিন্তু মোটেও স্বাস্থ্যকর নয়। এর জন্য আপনাকে অন্তত ৩০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। এরপরই দাঁত মাজাটা স্বাস্থ্যকর বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আর যারা অলসতার জন্য দাঁত একবারই মাজেন, তাদের সকালের নাশতার আগেই দাঁত ব্রাশ করে নেয়া জরুরি। তবে ভবিষ্যতে দাঁতের কোনো সমস্যায় পড়তে না চাইলে এ অভ্যাস থেকে আপনার বেরিয়ে আসাটা প্রয়োজন।

আরও পড়ুন:  Recipe: চিংড়ির নয়, এবার বাড়িতে বানান মাংসের মালাইকারি

দাঁত মাজারও কিন্তু নির্দিষ্ট নিয়ম রয়েছে। অনেকে ভাবেন, বেশি সময় নিয়ে দাঁত মাজলে দাঁত বেশি ভালো থাকবে। বিষয়টা কিন্তু মোটেও এমন নয়।

দাঁত মাজার জন্য সর্বোচ্চ দুই থেকে তিন মিনিট সময় নিন। কারণ, বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বেশি সময় ধরে দাঁত ব্রাশ করলে কিংবা কোনো কিছু খাওয়ার পর বারবার দাঁত ব্রাশ করার অভ্যাসে দাঁতের এনামেল এবং মাড়ির ক্ষতি হয়।

দাঁত ও মাড়ির স্বাস্থ্য ভালো রাখতে বারবার দাঁত ব্রাশ না করে বরং বারবার কুলকুচি করার অভ্যাস করতে পারেন। শক্ত কিংবা নরম খাবারের পাশাপাশি তরল খাবার যেমন: চা, কফি খাওয়ার পরও এ অভ্যাস চালু রাখুন। আর দাঁত মাজতে বেছে নিন নরম ব্রিসলেসের সঠিক আকৃতির টুথব্রাশ।

Featured article

%d bloggers like this: