Friday, July 30, 2021
HomeEDITOR PICKSচীনের দুঃসাহসিক শূকরের মৃত্যু

চীনের দুঃসাহসিক শূকরের মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা: চীনের জনপ্রিয় শূকরের মৃত্যুর ফলে শোকের ছায়া সমগ্র চীনে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই শূকরটির কথা স্মরণ করে লোকেরা তাকে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন এবং তাঁর সাহসিকতার গল্প বলছেন। এই শূকরের স্মৃতিচারণে সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ কয়েকটি হ্যাশট্যাগ ও মীম বানানো হচ্ছে। ‘ঝু জিয়ানকিয়াং’ নামের এই শূকরটি বার্ধক্যেজনিত কারণে মারা গেছেন।

চীনে প্রত্যেকেই এই শূকরকে দুঃসাহসিক বলেই জানে। আসলে, ২০০৮ সালে চীনের সিচুয়ান প্রদেশে ৭.৯ মাত্রার ভূমিকম্পে প্রায় ৯০ হাজার মানুষ মারা গিয়েছিলেন আর কয়েকজন নিখোঁজ হয়েছিলেন। এছাড়াও, সাড়ে ৩ লাখেরও বেশি লোক আহত হয়েছিলেন। এই শূকরটি একাই সেই বিপর্যয় থেকে বেঁচে ফিরে এসেছিল।

এই শূকরটি ৩৬ দিনের জন্য ধ্বংসস্তুপে সমাধিস্থ ছিল।
খাওয়ার তো দূরের কথা জল ও আলো ছাড়া সে একা লড়াই করে বেচেঁ ফিরে এসেছে। তার ওজন এতটাই কমে গিয়েছিল যে, তাকে ছাগলের মতো দেখতে লাগছিল।

ভূমিকম্পের মধ্যে ধ্বংসস্তূপে বেচেঁ থাকার কারণেই যে তাকে বাহবা দেওয়া হয় শুধু তাই নয়,তার বেচেঁ থাকার এই প্রবল ইচ্ছার গল্পটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেও ছড়িয়ে পড়েছিল। দক্ষিণ চীন মর্নিং পোস্টের প্রতিবেদন অনুসারে, এটি একটি চিড়িয়াখানার মালিক ভূমিকম্পের পরে ৪৫০ ডলারে কিনেছিলেন। তিনি জানিয়েছেন, বুধবার রাতে শূকর মারা গেছে বার্ধক্যের কারণে। আর এই শূকরটি চিড়িয়াখানায় বছরের পর বছর পর্যটকদের আকর্ষণ কেন্দ্র ছিল।

Most Popular