29 C
Kolkata

জাপানে আঘাত হানলো চীনা ক্ষেপণাস্ত্র

টোকিও: এবারকী জাপানেও বেজে উঠলো যুদ্ধের দামামা। তাইওয়ান কে ঘিরে শুরু চীনের যুদ্ধ মহড়ার আঁচ আছড়ে পড়লো সূর্যোদয়ের দেশে।

বৃহস্পতিবার পাঁচটি চীনা মিসাইল আছড়ে পড়ে জাপানের নিয়ন্ত্রণে থাকা জলরাশির মধ্যে। তাইওয়ানকে ঘিরে সামরিক মহড়া চালানোর সময়েই ঘটনাটি ঘটে। জাপানের বিদেশমন্ত্রী নোবুও কিশি এই ঘটনার কথা জানিয়েছেন। দেশের নিরাপত্তায় আঘাত হানা হয়েছে, এই মন্তব্য করেছেন তিনি।

সাংবাদিক বৈঠকে কিশি জানিয়েছেন, ন’টি মিসাইল উৎক্ষেপণ করেছিল চিন। তার মধ্যে পাঁচটি মিসাইল জাপানের স্বতন্ত্র আর্থিক অঞ্চলে আছড়ে পড়েছে। আগে কখনও এরকম ভাবে চিনা মিসাইল জাপানের সমুদ্রে আছড়ে পড়েনি। কূটনৈতিক ভাবে এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে জাপান। সেদেশের বিদেশমন্ত্রী বলেছেন, “আমাদের জাতীয় নিরাপত্তায় আঘাত হেনেছে এই কাজ। দেশের নাগরিকদের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হয়েছে।” প্রসঙ্গত, সমুদ্রসৈকত থেকে ২০০ নটিক্যাল মাইল এলাকা পর্যন্ত জাপানের স্বতন্ত্র আর্থিক অঞ্চল বলে উল্লিখিত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:  Interesting facts: আপনি কি জানেন, তিমি মাছের বমি সোনার চেয়েও দামি !

চীন প্রথম থেকেই মার্কিন স্পিকারের তাইওয়ান সফর নিয়ে আক্রমণাত্মক ছিল। সেদেশের সার্বভৌমত্বে আঘাত করার জন্য তাইওয়ানকে শাস্তি পেতে হবে, এমন হুঁশিয়ারিও দিয়েছিল। ন্যান্সি পেলোসির সফর শেষ হবার ১ দিন পরেই তাইওয়ানকে ঘিরে শুরু করে সামরিক মহড়া। সেখানেই তারা পরীক্ষামূলক ভাবে ৯টি ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করে।

ঘোষণা মতোই বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে মহড়া শুরু করে চিনের বিমান এবং নৌসেনা বাহিনী। তাইওয়ান প্রণালী বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত একটি জলপথ। সেই জায়গায় জাহাজ এবং বিমান চলাচল বন্ধ করে রেখে মহড়া দিচ্ছে চিন সেনা। মাঝে মাঝেই গোলাবর্ষণ করা হচ্ছে। বেশ কিছু জায়গায় তাইওয়ানের সীমানা পেরিয়েও ঢুকে পড়েছে চিনের বিমান। আপাতত জানা গিয়েছে, রবিবার পর্যন্ত টানা মহড়া চালানো হবে। সেই সময়ে সমস্ত রকমের যান চলাচল বন্ধ রাখতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বেজিংয়ের তরফে। প্রসঙ্গত, এর আগে কোনোওদিন তাইওয়ানকে ঘিরে এতবড় সামরিক মহড়া চালায়নি চিন। তবে সেদেশের নেতাদের মুখে বরাবরই শোনা গিয়েছে, তাইওয়ান চিনেরই অবিচ্ছেদ্য অংশ। ভবিষ্যতে আবার দুই ভূখণ্ড একত্রিত হবে।

আরও পড়ুন:  Interesting facts: জানেন, মেয়েরা কোন চরম মুহূর্তে নিজেদের পা তুলে দেয় ?

Featured article

%d bloggers like this: