Friday, July 30, 2021
HomeEDITOR PICKSকরোনার ফলে শিশুশ্রমিকের সংখ্যাবৃদ্ধি

করোনার ফলে শিশুশ্রমিকের সংখ্যাবৃদ্ধি

নিজস্ব সংবাদদাতা: করোনার কবলে পড়ে বহু মানুষের কাজ চলে গেছে। এই কাজ চলে যাওয়ার ঘটনা শুধু দেশে নয় সমগ্র বিশ্বের। বাড়ির বড়দের চাকরি চলে যাওয়ার পর কাজে নামতে হয়েছে ছোটদের। তাই শিশুশ্রমিকের সংখ্যা বেড়েছে এর কবলে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে সংখ্যাটা আরো বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ইউনিসেফ এর পক্ষ থেকে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০০০ থেকে ২০১৬ সালের মধ্যে অনেকটা কমে ছিল শিশু শ্রমিকের সংখ্যা। বেশ উচ্চমান হচ্ছে খুদে শ্রমিকদের সংখ্যা। এই সময় কালে ৮.৪ মিলিয়ন অপ্রাপ্তবয়স্ক কাজে নাম লিখেয়েছেন বলে জানিয়েছে ইউনেস্কো। এই ঘটনা চলতে থাকলে ৯ মিলিয়ন শিশুর শৈশব চলে যাবে।

ইন্টারন্যাশনাল লেবর অর্গানাইজেশন বয়সের ভিত্তিতে শ্রেণীবিভাগ করেছেন। বিশ্বব্যাপী শিশু শ্রমিকদের মধ্যে অর্ধেকেরও বেশির বয়স ৫ থেকে ১১ বছর। ৫ বছর ১৭ বছরের মধ্যে বিন্যাস করলে ফলাফল পাওয়া গিয়েছে আরও ভয়ংকর। ১৭ বছর বয়সী ছেলে-মেয়েদের দিয়ে এমন কিছু করানো হচ্ছে যা তাদের স্বাস্থ্য, নৈতিকতা, মানসিকতার পক্ষে ক্ষতিকারক।

ইন্টারন্যাশনাল লেবর অর্গানাইজেশনের কার্যকরী সম্পাদক গুই আইডার বলেছেন, ‘আমরা যদি এখনই সজাগ না হয় তাহলে অনেক দেরি হয়ে যাবে। বিশ্বব্যাপী শৈশবের একাংশ এখন বিপদের মুখে। গ্রামীণ এলাকায় উন্নয়ন একান্তই প্রয়োজন। তথাকথিত পিছিয়ে পড়া পরিবারগুলোকে প্রদান করতে হবে আর্থিক সহায়তা। শিশু শ্রমকে বন্ধ করতে হলে আগে উপড়ে ফেলতে হবে দারিদ্রতাকে।’

Most Popular