Wednesday, June 23, 2021
Homeদেশকরোনা-বন্যায় বিধস্ত ৩ রাজ্যে ত্রাণ পাঠালেন রাষ্ট্রপতি

করোনা-বন্যায় বিধস্ত ৩ রাজ্যে ত্রাণ পাঠালেন রাষ্ট্রপতি

নিজস্ব সংবাদদাতা :: মারণ কোভিড-১৯ ভাইরাসের প্রকোপে এমনিতেই নাজেহাল অসম, বিহার এবং উত্তর প্রদেশ। করোনা-প্রকোপের মধ্যেই বন্যা পরিস্থিতি চিন্তা আরও বাড়িয়েছে। বন্যা এবং করোনার কবলে থাকা অসম, বিহার এবং উত্তর প্রদেশের জনগণের জন্য রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে ত্রাণ সামগ্রী পাঠালেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। শুক্রবার সকালে রাষ্ট্রপতি ভবনে পতাকা নেড়ে, রেড ক্রস ত্রাণ সামগ্রী বন্যা ও করোনায় বিধ্বস্ত অসম, বিহার এবং উত্তর প্রদেশের জনগণের জন্য ত্রাণ পাঠিয়েছেন রাষ্ট্রপতি। সেই সময় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন এবং ইন্ডিয়ান রেড ক্রস সোসাইটির চেয়ারম্যান।ন’টি ট্রাকে করে ত্রাণ সামগ্রী পাঠানো হচ্ছে। ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে ত্রিপল, অস্থায়ী তাঁবু, শাড়ি, ধুতি, কম্বল, রান্না করার সামগ্রী, বালতি এবং ওয়াটার পিউরিফায়ার। এছাড়াও সার্জিক্যাল মাস্ক, পিপিই কিট প্রভৃতি পাঠানো হয়েছে| ভারতীয় রেড ক্রসের সাধারন সচিব রাষ্ট্রপতির এই উদ্যোকে কুর্নিশ জানিয়েছেন। অসমে বন্যা পরিস্থিতির ক্রমশ অবনতি হচ্ছে। পূর্ব ভারতের এই রাজ্যে বন্যার বলি হয়েছেন ৯৩ জন। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ২৮ লক্ষেরও বেশি মানুষ। অসমের ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট তাদের বুলেটিনে এমনটাই জানিয়েছে। এখনও পর্যন্ত বন্যায় ডুবে গিয়েছে অসমের ২৬টি জেলা। এ যাবত্‍ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ২৮,৩২,৪১০ জন। নতুন করে বন্যার জল ঢুকেছে দধিয়া গ্রামে। ডুবে গিয়েছে অসংখ্য বাড়িঘর। কোনওমতে নৌকা করে নিরাপদে এখানে যাচ্ছেন বাসিন্দারা। এখানকার জেলা কমিশনার পল্লব ঝা জানিয়েছেন, চলতি বছর এই নিয়ে তিন বার বন্যা হয়েছে দধিয়া গ্রামে বন্যা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত এখানে বন্যায় মৃত্যু হয়েছে ৭ জনের। প্রায় ৩০০ গবাদি পশুর মৃত্যু হয়েছে এই বন্যায়।বন্যার প্রভাব পড়েছে কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানেও। ইতিমধ্যেই সেখানে জলে ডুবে ১২৩ টি পশুর মৃত্যু হয়েছে। তার মধ্যে ১২টি একশৃঙ্গ গন্ডার রয়েছে। বাকি পশুদের মধ্যে ৯৩টি হরিণ ও চারটি মহিষেরও মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে।

Most Popular