Monday, June 21, 2021
HomeEDITOR PICKSকরোনার মধ্যেই ফের বিরল এক ভাইরাস বলিভিয়ায়

করোনার মধ্যেই ফের বিরল এক ভাইরাস বলিভিয়ায়

নিজস্ব সংবাদদাতা : করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যেই বলিভিয়ায় বিরল একটি ভাইরাস শনাক্ত করল আমেরিকার সেন্ট্রার ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন। এই ভাইরাসের নাম চ্যাপরে ভাইরাস। আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, গত ২০১৯ সালে চ্যাপরে ভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয় বলিভিয়ায়।

সেখানকার লা পাজ -এ তিন জন স্বাস্থ্যকর্মী এই ভাইরাসে সংক্রামিত হন। জানা যায়, দুই স্বাস্থ্যকর্মী এবং এক রোগী মারা যান। ২০০৪ সালে লা পাজের পূর্বাংশে অবস্থিত চ্যাপরে এলাকায় এই ভাইরাসের একটি ছোটোখাটো প্রাদুর্ভাব দেখা গিয়েছিল।’বডি ফ্লুইড’-এর মাধ্যমে ভাইরাসটি ছড়াতে পারে। এ ছাড়াও, মনে করা হয় ভাইরাসটি ইঁদুর থেকে সৃষ্টি হয়েই মানুষের মধ্যে ছড়ায়।

এর পরে এটা মানুষের থেকে মানুষে ছড়িয়ে পড়তে পারে। শারীরিক তরলের মাধ্যমে সংক্রামিত ভাইরাসগুলি শ্বাসপ্রশ্বাসের মাধ্যমে ছড়ানো ভাইরাসের থেকে সহজেই নিয়ন্ত্রণ করা যায়।বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রোগীর বীর্যে কয়েক সপ্তাহ থেকে ১৬৮ দিন পর্যন্ত এই ভাইরাস টিকে থাকতে পারে। অ্যারেনাভাইরাস পরিবারে আরও মারাত্মক প্রজাতি আছে যেমন লাসা ভাইরাস, ম্যাকুপো ভাইরাস।

গবেষকরা বলছেন, অনেক সময় এক ভাইরাস তার জিনের বিন্যাস বদলে ফেলে নতুন চেহারা নেয়। তখন সে আরও সংক্রামক হয়ে ওঠে। চাপার ভাইরাসও তেমনই বিরল প্রকৃতির। এই ভাইরাসের সংক্রমণে হেমারেজিক জ্বর হয়। উপসর্গ হল পেটে ব্যথা, বমি, চোখে ব্যথা, ত্বকে র্যাশ, চুলকানি, ঘা। সংক্রমণ বাড়লে রক্তবমি হতেও দেখা যায়।এখনও অবধি এই ভাইরাসের কোনও ওষুধ প্রতিরোধী ভ্যাকসিন বের হয়নি।

Most Popular