Friday, July 30, 2021
HomeEDITOR PICKSএকুশে মমতার বার্তা

একুশে মমতার বার্তা

নিজস্ব সংবাদদাতা : তৃণমূলের ২১ জুলাইয়ের কর্মসূচীতে ভার্চুয়াল মাধ্যমে বক্তব্য রাখেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ২১ জুলাই শহিদ স্মরণে আমাদের অনুষ্ঠান। জাতীয়-রাজ্য স্তরের নেতাদের কৃতজ্ঞতা জানাই। উপস্থিতির জন্য শরদ পাওয়ারকে ধন্যবাদ। ‘চিদম্বরম, দিগ্বিজয় জি, আসার জন্য ধন্যবাদ।আমাদের বন্ধু জয়া বচ্চন আসায় ধন্যবাদ। এসেছেন ডিএমকে, অকালি দলের প্রতিনিধিও, তাঁকেও কৃতজ্ঞতা।

মা-মাটি-মানুষকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে মমতা বলেছেন, ‘মানুষই আমাদের আশীর্বাদ দিয়ে তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় এনেছেন। মানুষ মানি পাওয়ার, মাসল পাওয়ারের বিরুদ্ধে লড়েছেন। ‘ তৃণমূল নেত্রী বলেছেন, ‘বাংলা আমাদের ভোট দিয়েছে, সারা দেশ আমাদের আশীর্বাদ দিয়েছে। পিকে-কে ধন্যবাদ, অভিষেক ও তাঁর আইটি-সেলকে ধন্যবাদ।’ নেত্রীর অভিযোগ , ‘ত্রিপুরায় আমাদের অনুষ্ঠান করতে দেওয়া হয়নি। এটাই কি গণতন্ত্র? সব গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করা হচ্ছে।’

নিজের ফোনে প্লাস্টার লাগিয়ে আড়িপাতা ইস্যুতে প্রতিবাদ জানান মমতা। বলেন , ‘ওরা নৃশংস, শান্তিতে কাউকে বাঁচতে দেবে না ।আমি চিদম্বরমকে ফোন করতে পারি না, ফোনে আড়িপাতা হয়। আমাকে ফোনের ক্যামেরায় প্লাস্টার লাগাতে হচ্ছে।’

এরপরই বিজেপি-র বিরুদ্ধে ফ্রন্টের ডাক দেন মমতা। বলেন , ‘গঙ্গায় মৃতদেহ ভাসছে আর প্রধানমন্ত্রী বলছেন উত্তরপ্রদেশ দেশের মধ্যে সেরা রাজ্য। একটুই লজ্জা নেই। টিকা নেই, ওষুধ নেই, অক্সিজেন নেই, মৃতদেহ সৎকার পর্যন্ত করতে দিতে হচ্ছে না। আমরা গঙ্গা থেকে তুলে সৎকার করেছি। খালি বড় বড় কথা। আপনার ব্যর্থতা চূড়ান্ত। আপনাদের জন্য ৪ লক্ষ লোক মারা গিয়েছে।

দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ন্ত্রণ কার যেত সঠিক সময় ব্যবস্থা নিলে। কিন্তু বাংলায় ডেইলি প্যাসেঞ্জারের মতে এসে গণতন্ত্র ধ্বংস করতেই ব্যস্ত ছিলেন আপনারা। বাংলার মানুষ বুঝিয়ে দিয়েছেন, স্বাধীনতা আন্দোলন হোক বা যে কোনও লড়াই, লড়তে প্রস্তুত বাংলা। সব রাজ্যকে বলব, একজোট হয়ে লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত হন। জোট গড়ে তুলুন। এটাই ঠিক সময়। যত দেরি করবেন, ততই সময় নষ্ট হবে। আমি দিল্লি যাচ্ছি। শরদজি, চিদম্বরমে বলব বৈঠক ডাকলে আমরা যাব।’

Most Popular