Monday, March 1, 2021
Home কলকাতা এবার ফেসবুকে সরব জিতেন্দ্র তিওয়ারি

এবার ফেসবুকে সরব জিতেন্দ্র তিওয়ারি

নিজস্ব সংবাদদাতা : প্রথমে ‘ইঙ্গিতপূর্ণ’ টুইট। তার কিছু ক্ষণের মধ্যেই ফেসবুকেও সরব পাণ্ডবেশ্বরের বিধায়ক জিতেন্দ্র তিওয়ারি। রবিবার তৃণমূলের পশ্চিম বর্ধমান জেলা কমিটি থেকে বাদ পড়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় জিতেন্দ্রর ‘শায়েরি’ তাঁকে নিয়ে নতুন করে জল্পনার অবকাশ তৈরি করে দিল। যদিও জোড়াফুল শিবির ‘উনি দলেই আছেন’ বলে নিশ্চিন্ত।

সোমবার সকালে নিজের টুইটার হ্যান্ডলে একটি আমেরিকান প্রবাদ তুলে ধরেছিলেন পাণ্ডবেশ্বরের এই বিধায়ক। তিনি লিখেছিলেন, ‘হোয়েন দ্য গোয়িং গেট্‌স টাফ, দ্য টাফ গেট্স গোয়িং’। অর্থাৎ, পরিস্থিতি যখন কঠিন হয়ে দাঁড়ায়, দৃঢ়চিত্ত মানুষই তার মোকাবিলা করতে পারে।

সেই একই কথা নিজের ফেসবুক প্রোফাইলেও লিখেছেন জিতেন্দ্র। পাশাপাশিই উর্দু কবি রাহত ইন্দোরির একটি শায়েরির বঙ্গানুবাদও ফেসবুকে পোস্ট করেছেন তিনি। লিখেছেন, ‘আমাদের শহরের দৃশ্য দেখতে পাবেন না / এখানকার মানুষ চোখে স্বপ্ন রাখে / প্রদীপ হয়ে আমায় নেভাতে পারবে না তুমি / আমরা আমাদের বাড়িতে অনেক সূর্য রাখি’।

সেই সঙ্গে জুড়েছেন আরও একটি পোস্ট, ‘যত কঠিন সংঘর্ষ হবে, বিজয়ের আনন্দ ততই মধুর হবে’।তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে এর আগে তৃণমূলের নয়া নির্বাচিত পশ্চিম বর্ধমান জেলা কমিটির তালিকা ফেসবুকে তুলে ধরেছিলেন জিতেন্দ্র। সেই সঙ্গে নতুন কমিটিকে ‘অভিনন্দন’ও জানিয়েছিলেন।

তাঁর ফেসবুক প্রোফাইলে স্ক্রল করলে তা নজরে আসে। তার পরেই আমেরিকান প্রবাদ এবং উর্দু শায়েরির মিশেলে পাণ্ডবেশ্বরের বিধায়কের নতুন পোস্ট নিয়ে স্বাভাবিক ভাবেই জল্পনা তৈরি করেছে। পরপর সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন পোস্ট নিয়ে তৃণমূল-সহ রাজ্যের বিভিন্ন রাজনৈতিক শিবিরে আবার জল্পনা শুরু হয়েছে।

বস্তুত, গত এক মাসে জিতেন্দ্রকে নিয়ে যে পরিমাণ টানাপড়েন চলেছে, তা কোনও একজন নেতাকে নিয়ে সাম্প্রতিককালে এ রাজ্যে হয়নি। বিজেপি-তে তিনি প্রায় চলেই গিয়েছিলেন। কিন্তু শেষমুহূর্তে ‘ইউ টার্ন’ নিয়ে আবার তৃণমূলে ফিরে আসেন।

তবে বিজেপি-তে যোগদানের জল্পনার মধ্যেই আসানসোলের পুর প্রশাসকের পদ এবং তৃণমূল ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন জিতেন্দ্র। তার পর তৃণমূলে ফিরে এলেও তাঁকে আর পুর প্রশাসকের পদটি ফিরিয়ে দেওয়া হয়নি। বরং রবিবার তাঁকে বাদ দেওয়া হয়েছে তৃণমূলের নবঘোষিত জেলা কমিটি থেকেই। তার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় হয়ে উঠেছেন এই ডাকাবুকো নেতা।

যদিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট নিয়ে যাবতীয় জল্পনা উড়িয়ে দিয়ে জিতেন্দ্র বলছেন, ‘‘মাঝে মাঝে ফেসবুকে কিছু না কিছু লিখতে হয়। যাতে মানুষ নজর করে। সে জন্যই লেখা। অন্য কোনও কারণ নেই। নতুন কমিটিকে আমি শুভেচ্ছা জানিয়েছি।’’ জিতেন্দ্রর এই ‘নজর’ করানোর জন্য লেখা নিয়ে জেলার মুখপাত্র অশোক রুদ্র বলছেন, ‘‘উনি আমাদের দলেই আছেন। উনি ফেসবুকে যা লিখেছেন, তা ওঁর ব্যক্তিগত অভিমত।

Most Popular

মহারাষ্ট্রে লক্ ডাউনের ইঙ্গিত!

নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনার বাঁধ কিছুদিন ধরতে পারলেও আবার মহারাষ্ট্রে বাঁধ ভাঙছে করোনা। আবারও লক্ ডাউনের ইঙ্গিত দিলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী।রবিবার একটি সাংবাদিক বৈঠকে...

ট্রেন থেকে পড়ে সোদরপুরের ছাত্রীর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদন: ট্রেন থেকে পড়ে মৃত্যু হলো পুজা দত্তের। পুজা সোদপুরের বাসিন্দা বলে জানা গেছে। উত্তর ২৪ পরগণার সোদপুরের শেঠ কলোনির বাসিন্দা...

ভ্যাক্সিন নিলেন প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদন: ইতিমধ্যেই দেশ জুড়ে শুরু হয়ে গেছে করোনা দূরীকরণের জন্যে টিকাকরণ। তারই মধ্যে এবার সোমবার সকালবেলা ট্যুইট করে আচমকাই সারপ্রাইজ দিলেন...

আবারও মূল্য বৃদ্ধি ! হাজারের পথে রান্নার গ্যাস

নিজস্ব প্রতিবেদন : কিছুদিন আগেই গ্যাস এর দাম বাড়লো, বেড়ে হয়েছিল ৮২০ টাকা ৫০ পয়সা। এই মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে যখন কেন্দ্র বিরোধী...