31 C
Kolkata

স্ট্র্যান্ড রোড দুর্ঘটনাস্থলে গিয়ে রাজ্যকে তোপ রাজ্যপালের

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোমবার সন্ধ্যে বেলায় আগুন লাগে স্ট্র্যান্ড রোডের বহুতলে। মৃত্যু হয় ৯জন উদ্ধারকারীর; দমকলকর্মী,পুলিশ এবং রেল কর্মীর। গতকালই ঘটনাস্থলে যান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর্থিক আশ্বাস দেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীও আর্থিক সহায়তার কথা জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার বিকেলে ৪:১৫ নাগাদ ওই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাস্থলে যান রাজ্যপাল। সেখানে গিয়েও রাজ্যকে বিঁধতে ছাড়লেন না তিনি। রাজ্যপাল মৃতদের পরিবারের প্রতি সহমর্মিতা জানিয়ে শুরু করেন রাজ্যকে তোপ দাগা। তিনি বলেন, আম্ফানের সময়ে আমি দেখেছি কলকাতার পরিস্থিতি। এখন বেশি কিছু বলবো না। শুধু বলবো ওই দুর্ঘটনায় মানুষ ছিলো,কিন্তু প্রযুক্তি হার মেনে যায়। রাজ্যের উহিত প্রযুক্তিগত উন্নতি সাধন করা। আজ প্রযুক্তি ঠিক থাকলে, এমনটা হতো না।
রাজ্যের গাফিলতির দিকে পরোক্ষভাবে খোঁচা মেরে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় বলেন, সময়ের সাথে সাথে বিপর্যয় মোকাবিলার সরঞ্জামের উন্নতির কথা ভাবতে হবে। তিনি বলেন, ২০১০ এ পার্কস্ট্রিট অগ্নিকাণ্ডে ২৪ জনের মতো মানুষের মৃত্যু হয়েছিলো। কলকাতার এবার উন্নতি হওয়া উচিৎ। এটা ভারতের বড়ো শহরগুলির মধ্যে অন্যতম। মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী দুজনেই সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন। রেলের অধিকর্তারা খবর পেয়ে সাবধানতা অবলম্বন করেন। দমকল তার পর আসে। আমি চাই আহতেরা দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুক।

আরও পড়ুন:  Kolkata News: কলকাতায় ঊর্ধ্বগামী টিবি সংক্রমণ, নির্দেশিকা জারি রাজ্যের
সোমবার স্ট্র্যান্ড রোডে অগ্নিকাণ্ড

ঘটনাস্থলে পৌঁছেও রাজ্য রাজ্যপাল সংঘাত বজায় রাখলেন রাজ্যপাল। এর আগে মুখ্যমন্ত্রী তথা শাসকদের সঙ্গে প্রায়ই খোঁটাখুঁটি লেগেছে রাজ্যপালের। এবারও অগ্নিকাণ্ডের জন্যে রাজ্যকেই পরোক্ষভাবে দায়ী করলেন তিনি।

Featured article

%d bloggers like this: